অনলাইনে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করার নির্ভরযোগ্য একটি প্রতিষ্ঠান।

যে কারণে রাতে তরমুজ খাবেন না !

যে কারণে রাতে তরমুজ খাওয়া উচিত নয় ।

0

এই ঘাম ঝড়ানো গরমে তরমুজ খেতে কার না ভাল লাগে। যেমন ভাল লাগে,তেমনই হার্ট,কিডনী সুস্থ্য রাখতে,শরীর ঠাণ্ডা রেখে হিট স্ট্রোকের ঝুঁকি কমায় তরমুজ । তবে তরমুজ বেশি খেলে বা ভুল সময় খেলে কিন্তু হিতে বিপরীত হতে পারে ।

শরীর ঠান্ডা রাখে বলে অনেকেই রাতে তরমুজ খেয়ে অসুস্থও হয়ে পরেন । জেনে নিন কেন রাতে তরমুজ খাওয়া উচিত নয় ।

১.তরমুজ সহজে হজম হয় না বা হজমে সাহায্য করে না । তাই রাতে তরমুজ খেলে বদহজম হতে পারে । তাই রাতে তরমুজ না খাওয়াই ভাল ।

২.তরমুজে প্রচুর পরিমানে প্রাকৃতিক চিনি থাকে । ফলে রাতে তরমুজ খেলে শরীরের ওজন বেড়ে যাওয়ার সম্ভবনা বেশি থাকে ।

৩.তরমুজের মধ্যে প্রচুর পরিমানে পানি থাকার কারণে রাতে বার বার প্রস্রাব পেতে পারে । ফেলে ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে পরদিন ক্লান্ত লাগতে পারে ।

৪.আয়ুর্বেদেও রাতে কোনও ফল বা তরমুজ খেতে বারণ করা হয়েছে । রাতে ফল খেলে ডায়রিয়া,এমনকি কোন কোন ক্ষেত্রে কোষ্ঠকাঠিন্যর সমস্যা হতে পারে । তাই রাতে তরমুজ না খাওয়াই ভাল ।

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন,সকাল বা বিকেলের দিকেই তরমুজ খাওয়ার আদর্শ সময় । সেই সংগে অতিরিক্ত তরমুজ খাওয়ার আগে তরমুজ কিছুক্ষণ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন । এর ফলে তরমুজ থেকে শরীর খারাপ হওয়ার ঝুঁকি কমে যাবে । পানি থেকে তুলে তরমুজ টাটকা খাওয়াই ভাল । অনেকেই তরমুজ কেটে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা খেতে চান । গরমে খেতে ভাল লাগলেও ফ্রিজে রাখা তরমুজ থেকে অ্যাসিডিটি হতে পারে । তাই তরমুজ ফ্রিজে না রেখে টাটকা খাওয়াই ভাল । আরা রাতে তরমুজ না খেয়ে ডাক্তারী পরামর্শ অনুযায়ী খাওয়াই ভাল ।

সূত্রঃ আনন্দবাজার পত্রিকা ।

 

Leave A Reply

Your email address will not be published.