অনলাইনে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করার নির্ভরযোগ্য একটি প্রতিষ্ঠান।

আখরোট খেলে বিষন্নতার ঝুঁকি কমবে

0

যারা সব সময় বাদাম খেত না তাদের মধ্যে গবেষণা চালিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র খুঁজে পেয়েছে যে ,আখরোট বাদাম ভোক্তাদের মধ্যে বিষন্নতার স্কোর উল্লেখযোগ্যভাবে কম ছিল – বিষন্নতার হার ২৬ শতাংশ কম এবং অন্যান্য বাদাম ভোক্তাদের মধ্যে ৮ শতাংশ কম  

 

আমেরিকান প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা যায়, আখরোট খাওয়া বিষন্নতার ঝুঁকি , প্রাদুর্ভাব ও পুনরাবৃত্তিকে কমিয়ে দেয় এবং মনযোগের মাত্রাকে উন্নত করে । অ্যামেরিকার ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয় , লস এঞ্জেলেস (ইউসিএলএ) এর গবেষকরা জানালেন যে, যারা সব সময় বাদাম খেত না তাদের মধ্যে হতে আখরোট ভোক্তাদের বিষণ্নতার হার ২৬ শতাংশ কম এবং অন্যান্য বাদাম ভোক্তাদের ৮ শতাংশ কম । গবেষণাটি নিউট্রিয়েন্টস জার্নালে প্রকাশিত হয় । সেখানে দেখা যায় যে ,অন্যান্য বাদাম খাওয়ার তুলনায় আখরোট ভোগ উচ্চতর শক্তির মাত্রা এবং আরও ভাল মনযোগের সাথে সম্পর্কিত।

 

দি সেন্টার্স ফর ডিজিস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এর তথ্য মতে, প্রতি ছয়জন প্রাপ্তবয়স্কের মধ্যে একজন তাদের জীবনে কিছু সময় বিষণ্ণ থাকে। ইউসিএলএ’র প্রধান তদন্তকারী লেনোর আরব বলেন, কম খরচে বিষন্নতা দূরীকরণের পদক্ষেপ খুঁজে পাওয়া গুরুত্বপূর্ণ । যেমন খাদ্যতালিকাগত পরিবর্তন- তা বাস্তবায়ন করা সহজ এবং বিষণ্নতার ঘটনা কমাতে সাহায্য করতে পারে। “কার্ডিওভাসকুলার এর উপর আখরোটের ভূমিকা এবং স্বাস্থ্য জ্ঞান নিয়ে এর আগে তদন্ত করা হয়েছে এবং এখন আমরা বিষণ্নতার লক্ষণের সঙ্গে সম্বন্ধ দেখি — একটি স্বাস্থ্যকর খাওয়ার পরিকল্পনার জন্য তাদেরকে অন্তর্ভুক্ত করার আরেকটি কারণ” বলেন আরব ।

 

গবেষকরা “জাতীয় স্বাস্থ্য ও পুষ্টি পরীক্ষা” জরিপের তথ্য পরীক্ষা করেছেন, যা মার্কিন জনসংখ্যার বৃহত্তর নমুনা থেকে এসেছে। ২৬,০০০ এর ও বেশি আমেরিকান প্রাপ্তবয়স্কদেরকে এক থেকে দুই দিন তাদের খাদ্যতালিকাগত খাবার ও দুই সপ্তাহ ধরে বিষণ্নতার উপসর্গের বিষয় সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল ।

ব্যাপকভাবে গৃহীত প্রশ্নাবলী ব্যবহার করে অংশগ্রহণকারীরা নির্ধারণ করেছেন যে ,কতগুলি বিষয় বিষন্নতার কারণ, যেমন কোন কিছু করতে কম আগ্রহ, ঘুমাতে সমস্যা বা খুব বেশি ঘুমানো, ক্লান্ত বোধ করা বা সামান্য শক্তি থাকা এবং কোন কিছুতে মনোযোগ দেওয়ার সমস্যা।

 

ফলাফল অনুযায়ী, আখরোট ভোক্তাদের কার্যক্রমে বেশি আগ্রহ ,উচ্চ শক্তি স্তর, কম হতাশা, আরও বেশি মনোযোগ এবং আরও বেশি আশাবাদী হতে দেখা যায়।

বয়স, লিঙ্গ, জাতি, আয়, শরীরের ভর সূচক (বিএমআই), ধূমপান, অ্যালকোহল পান, এবং বৈবাহিক অবস্থা নিয়ন্ত্রণের পরেও যারা বাদাম খেত না তাদের তুলনায় যারা বাদাম খেয়েছিল বিশেষ করে আখরোট তাদের বিষন্নতার স্কোর উল্লেখযোগ্যভাবে কম ছিল ।

 

গড়ে,আখরোট ভোক্তারা দিনে প্রায় 24 গ্রাম আখরোট খেত,যা এক-চতুর্থাংশ কাপ এর সমতুল্য।

 

বাদাম খাওয়া এবং বিষণ্নতা স্কোরের মধ্যে সম্পর্ক পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য সামঞ্জস্যপূর্ণ ছিল । বৃহত্তর বিষণ্ণতার উপসর্গগুলি এবং এন্টিডিপ্রেসেন্টস ব্যবহার করার সম্ভাবনার প্রভাব মহিলাদের মধ্যে বেশি শক্তিশালী হতে দেখা যায় পুরুষদের তুলনায়।

 

অন্যান্য গাছ বাদামের তুলনায়, আখরোটে একটি অনন্য ফ্যাটি অ্যাসিড প্রোফাইল থাকে – এতে বেশিরভাগ পলিঅ্যান্সেচুরেটেড ফ্যাট থাকে, যার মধ্যে রয়েছে উদ্ভিদ-ভিত্তিক ওমেগা-৩ আলফা-লিনোলোনিক অ্যাসিড (২.৫ জি /২৮ গ্রাম), যা অন্য কোন বাদামের চাইতে বেশি, গবেষকরা বলেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.